1. admin@prothomctg.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:২৯ অপরাহ্ন

ড্রেইন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ বান্দরবানে

বাংলাধারা
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ১৮ বার পঠিত

বান্দরবান-রোয়াংছড়ি সড়কে সড়ক ও জনপদ বিভাগের ড্রেইন নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। তড়িগড়ি করে বালু না দিয়ে মাটির উপরে নিম্নমানের ইট বিছিয়ে ঢালাই কাজ সম্পন্ন করার অভিযোগ উঠেছে মানু নামে এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয় অতিরিক্ত বালু ও সিমেন্ট কম দিয়ে ড্রেইনের ঢালাই কাজ চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগও আছে এই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে।

স্থানীয়রা জানান, নিয়মানুযায়ী বেইজ তৈরি করে বালু দিয়ে এর উপর ইট বিছানোর কথা থাকলেও সেটি না করে কর্তৃপক্ষকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কোন রকম কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। আবার সেসব কাজে নেই কর্তৃপক্ষের সঠিক তদারকিও।

সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য মতে, চলতি অর্থ বছরে ২৪ লক্ষ ৬৭ হাজার টাকা ব্যয়ে দেড় কিলোমিটার ড্রেইনের নির্মাণ কাজে বরাদ্ধ পায় মেসার্স এরাই ইন্টান্যাশনাল নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। বর্তমান কাজটি বাস্তবায়ন করছেন মানু নামে এক ঠিকাদার।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ড্রেইন নির্মাণের কাজ প্রায় অর্ধেক শেষ। কোথাও দেওয়া হচ্ছে ঢালাই আবার কোথাও সমান্তরাল ভাবে মাটি কাটছেন শ্রমিকরা। আবার কোথাও বালু সলিং না দিয়ে ইট বিছানোর কাজও শেষ। কয়েকটি স্থানে এবরো থেবরোভাবে মনগড়াভাবে ইট বিছানো হয়েছে। তাছাড়া সলিংয়ের চার ইঞ্চি করে ঢালাই দেওয়া কথা থাকলেও কোথাও সাড়ে দুই আবার কোথাও তিনইঞ্চি করে ঢালাই কাজ করছেন। তবে মিশ্রিত মসলায় সিমেন্ট কম দেওয়াতে ঢালাই দেয়ার স্থানে পা দিলেই নিমিষেই ভেঙ্গে যাচ্ছে। ঢালাই দেওয়া স্থানগুলোতে হাত দিয়ে খুড়ে দেখলে শুধু বালু আর মাটি ছাড়া সিমেন্টের কোন চিহ্ন দেখা মেলেনি।

ড্রেইন নির্মাণ কাজে নিয়োজিত শ্রমিক মো. খায়ের বলেন, আমরা ম্যানেজারের কথানুযায়ী কাজ করছি। বালু সলিং কেন দেননাই এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, ম্যানেজার না বললে আমরা কিভাবে দিব। তারা যেভাবে কাজ করতে বলছে আমরা সেভাবে করছি। তাছাড়া বালু নিম্নমানের আর চারইঞ্চি ঢালাই দেওয়া কথা থাকলে কোথাও দুই তিন ইঞ্চি দিয়ে কাজ করা হচ্ছে।

মানু ঠিকাদার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ভাই আমি ব্যস্ত ছিলাম গতকাল। আর আমাকে তো সুযোগ দিতে হবে কথা বলার। আমার সাথে কথা না বলে উর্ধতন কর্মকর্তাকে জানিয়েছেন। আপনাদের কারণে আমরা বড় হতে পারবো নাহ নিচে থাকতে হবে।

সড়ক ও জনপদের অধিদপ্তরের সিনিয়র অফিসার অংশৈপ্রু মারমা (বাপ্রু) বলেন, প্রকল্পের ওয়ার্কা ওর্ডারে সলিংয়ের বালু ধরা নাই। তবে ড্রেইনের কাজ শতভাগ হচ্ছে বলে দাবী করেন তিনি।

সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী ফারহান সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি এ বিষয়ে কথা বলে জানাচ্ছি।

Facebook Comments Box
এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৬ প্রথম চট্টগ্রাম। @ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park