1. admin@prothomctg.com : admin :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:১১ অপরাহ্ন

রোয়াংছড়িতে কেএনএফের ৭টি বাঙ্কার ধ্বংস

নিজস্ব প্রতিনিধি, বান্দরবান
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ১৬ বার পঠিত

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে পাহাড়ে সশস্ত্র সংগঠন কুকি চীন ন্যাসনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ’র) তৈরি করা ৭টি বাঙ্কার ধ্বংস করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রোয়াংছড়ি উপজেলা সদর থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে বালু পাহাড়ে এ বাঙ্কার ধ্বংস করা হয়।

নিরাপত্তা বাহিনী জানায়, রোয়াংছড়ি উপজেলা সদর থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে বালু পাহাড় খ্যাত পাহাড়ের উপরে ৭টি পরিত্যক্ত বাঙ্কার শনাক্ত করা হয়। যেখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে তাদের রাত্রি যাপনে ব্যবহৃত কম্বল এবং গুলির কার্তুজ। ধারণা করা হচ্ছে, ওই স্থানটি রোয়াংছড়ি–রুমা আসা যাওয়ার রাস্তা হতে উঁচু হওয়ার কারণে প্রতিপক্ষের উপর যে কোনো ধরনের হামলা চালানোর সুবিধার্থে এই বাঙ্কার তৈরি করেছিল কেএনএফ। বাঙ্কার শনাক্তের পর গতকাল সকালে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা সেখানে গেলে উপস্থিতি টের পেয়ে কেএনএফের সদস্যরা পাহাড়ের ঢালু বেয়ে পালিয়ে যায়।

পাইখং পাড়া কারবারি বৈথাং বম বলেন, দীর্ঘ এক বছরের সহিংসতার অবসান হয় শান্তি আলোচনার মাধ্যমে। এর মধ্যে নতুন করে কেএনএফের চাঁদাবাজির ঘটনায় এলাকার সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত। বম স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি জেমস বম বলেন, আমরা পাহাড়ে আর সহিংসতা চাই না। সহিংসতা পরিহার করে একে অপরের মাঝে বন্ধন রেখে বান্দরবান পার্বত্য জেলায় শান্তিতে বসবাস করতে চাই।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির অন্যতম সদস্য রেভা পাকসিস বি.ৎলুং জানান, শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সাথে শান্তি আলোচনা চলাকালীন কেএনএফের এমন কার্যক্রম খুবই দুঃখজনক। বিষয়টি নিয়ে কমিটির সাথে আলোচনা করা হবে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. পারভেজ আলী জানান, গত ৮ জানুয়ারি সন্দেহভাজন কিছু লোক রোয়াংছড়ি বালু পাহাড় এলাকায় একটি মোটরসাইকেল থামিয়ে চাঁদা আদায় করে। ঘটনাস্থলের পাশ্ববর্তী এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের তৈরি বাঙ্কার খোঁজে পেয়েছে। কিছু গুলির খোসাও উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সাথে কারা জড়িত বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments Box
এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৬ প্রথম চট্টগ্রাম। @ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park