1. admin@prothomctg.com : admin :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:২৩ অপরাহ্ন

আওয়ামী লীগে নির্বাচনী তোড় জোড় তুঙ্গে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৪৭ বার পঠিত

নির্বাচনী তোড়-জোড়ের তুঙ্গে রয়েছে আওয়ামী লীগ। আগামী ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচরে লক্ষ্যে আগামীকাল শনিবার দলীয় মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু করবে দলটি। দলীয় সূত্র জানিয়েছে, নির্বাচন সামনে রেখে এবার ১০ হাজার মনোনয়নপত্র বিক্রির প্রস্তুতি নিয়েছে দলটি। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হবে আগামীকাল শনিবার। আর চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত। নির্বাচনে লড়াইয়ের জন্য অন্যান্য প্রস্তুতিও শেষ করেছে দলটি। আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, নির্বাচনী প্রস্ততির পাশাপাশি বিএনপির আন্দোলন মোকাবেলা সমান্তরালে চালাবে আওয়ামী লীগ।

গতকাল দলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহের আহ্বান করা হয়েছে। সেখানে জানানো হয়, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তপশিল অনুযায়ী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-এর মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের জন্য আগামী শনিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত (প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা) পর্যন্ত দলীয় মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদানের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বিক্রি করা হবে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ২৩ বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউয়ে। সেখানে মোট ১০টি বুথ থাকবে। এ ছাড়া অনলাইনেও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কেনা যাবে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের জন্য ২টি করে ৪টি বুথ রাখা হয়েছে। অন্য বিভাগগুলোর জন্য থাকবে ১টি করে বুথ। আওয়ামী লীগ জানিয়েছে, দলের মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে প্রশাসনিক বিভাগ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট বুথ থেকে দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা প্রদান করতে হবে।

কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগ এবং তৃতীয় তলায় রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় সকল বিভাগের মনোনয়নপত্র জমা নেওয়া হবে। আওয়ামী লীগ-এর মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কোনো প্রকার অতিরিক্ত লোকসমাগম ছাড়া প্রার্থী নিজে অথবা প্রার্থীর একজন যোগ্য প্রতিনিধির মাধ্যমে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদান করতে হবে। আবেদনপত্র সংগ্রহের সময় অবশ্যই প্রার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে এবং ফটোকপির উপর মোবাইল নম্বর ও বর্তমান সাংগঠনিক পরিচয়সহ ৩টি পদ সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করতে হবে। আগামী ২১ নভেম্বর ২০২৩ মঙ্গলবার বিকাল ৪টার মধ্যে মনোনয়ন ফরম জমা প্রদান করতে হবে।

জানা গেছে, আজ দলের সদস্যদের নিয়ে আজ বৈঠক করবে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন দলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান শেখ হাসিনা। বৈঠকে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান নির্ধারণ করা হতে পারে। দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা সেখানেই মনোনয়ন বিক্রির উদ্বোধন করবেন। ওবায়দুল কাদের জানান, শুক্রবার বিকাল ৩টায় তেজগাঁও কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠক হবে। দলের সভাপতি শেখ হাসিনাও তাতে অংশ নেবেন। তিনি ভার্চুয়ালি মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। শনিবার থেকে সবাই মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমন্ডলীর এক সদস্য জানিয়েছেন, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কোন চেয়াম্যান হিসেবে অবশ্যই সিনিয়র কাউকে দেওয়া হতে পারে। আর এ বিষয়টি দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার ওপর ছেড়ে দিয়েছি। তিনিই নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কোন চেয়ারম্যান নির্ধারণ করবেন। আওয়ামী লীগ এবার মনোনয়ন ফরমের মূল্য বাড়িয়েছে। মনোনয়ন ফরমের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা। যা দলের আয়ের অন্যতম বড় উৎস জাতীয় নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে মনোনয়নপত্র বিক্রি থেকে অর্জিত অর্থ। গত জাতীয় নির্বাচনের যা ছিল ৩০ হাজার টাকা।

এ দিকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী পরিবেশ তৈরীতেও কাজ করছে আওয়ামী লীগ। নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে যাতে কোন প্রকার ব্যাত্যয় না থাকে সে জন্য দল থেকে নির্বাচন কমিশনকে সহযোগীতা করার কথা বলছেন দলটির নেতারা। একই সঙ্গে বিএনপির আন্দোলন মোকাবেলায় দলীয় সকল নেতা-কর্মীদের সর্ব্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় থাকতে বলেছে দলটির হাইকমান্ড। এ জন্য আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রতিরোধে দেশের প্রতিটি গ্রাম-গঞ্জ, ওয়ার্ড, পাড়া-মহল্লায় সতর্ক পাহারায় থাকার প্রস্তুতি আগেই শেষ করেছে দলটির নেতা-কর্মীরা। তফশিল ঘোষণার পরবর্তী কয়েকদিন কেউ যেন বিএনপি আন্দোলনের নামে কোন ‘নৈরাজ্য’ সৃষ্টি করতে না পারে, সে জন্য দলীয় নেতারা অনেক আগে থেকে কর্মীদের সতর্ক করে আসছেন। এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে দাঁতভাঙা জবাব দিতে বলা হয়েছে দলীয় হাইকমান্ড থেকে। সারা দেশের দলীয় ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, তফসিল ঘোষণা আগে ও পরে গত কয়েক দিন ধরেই দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করেছেন আওয়ামী লীগের নেতারা। এ বৈঠকে নির্বাচনী প্রস্তুনি নিয়ে যেমন আলোচনা হয়েছে তেমনি নির্বাচনের আগে বিএনপির আন্দোলণ মোকাবেলা নিয়েও আলোচনা হয়। নির্বাচনের আগ পর্যন্ত এখন ওই কার্যালয় সরগরমই থাকবে।

গত মঙ্গলবার তফসিল ঘোষণার পর পরই সারা দেশে একে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করে আওয়ামী লীগ। যা গতকালও সারা দেশের বিভিন্ন জেলায় অব্যাহত ছিল। দলীয় নেতারা বলছেন, এর ফলে দুটি জিনিস হবে। এর একটি হলো- এই মিছিল নির্বাচনী পরিবেশ তৈরীতে সহযোগীতা করবে। অপর দিকে বিএনপির নাশকতা মোকাবেলাও এ কর্মসূচি বেশ কার্যকরী থাকবে। এখন নির্বাচন পর্যন্ত এমন বিভিন্ন কর্মসূচি দিয়ে দলীয় নেতা-কর্মীদের রাজপথে থাকার কৌশন নিবে আওয়ামী লীগ। দলের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোকেও সারা দেশে সতর্ক অবস্থানে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক বলেন, সংবিধানের আলোকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আর বিএনপির আন্দোলন নিয়ে অনেক কথা বলেছেন অতীতেও। তিনি বলেন, আমরা সতর্ক অবস্থায় থাকবো। তিনি আরো বলেন, বিএনপি কোথায়? কোথায় তাদের আন্দোলন হচ্ছে, অবরোধ হচ্ছে।

Facebook Comments Box
এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৬ প্রথম চট্টগ্রাম। @ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park