1. admin@prothomctg.com : admin :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:০১ অপরাহ্ন

চাইনিজ ভাষা শিখে বদলে গেছে সুমন আলীদের জীবন

ইনকিলাব
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৩
  • ১০৮ বার পঠিত

চাইনিজ ভাষা শিখে বদলে গেছে সুমন আলীদের জীবন।মাত্র উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে সুমন আলীর এখন বেসিক বেতন ৪০ হাজার টাকা। শুধু তাই নয়, সুমনের মতে, রনি আয় করছে মাসে প্রায় ৫ লাখ আর সাইমনের মা এক সময় বাসায় কাজ করলেও এখন তার চিকিৎসা হয় এভারকেয়ার বা অ্যাপোলো হসপিটালে।

সুমন আলী জানান, চাইনিজ ভাষা শেখার কারণে তার জীবন বদলে গেছে। গত ৫ এপ্রিল থেকে তিনি গাজীপুরের টাইগার নিউ এনার্জি লি. এ কাজ করছেন। বেসিক বেতন ৪০ হাজার টাকা। তার আগে ১১ জানুয়ারি থেকে তিনি কাজ করতেন আশুলিয়ার একটি শিল্পপ্রতিষ্ঠানে।

তিনি বলেন, চাইনিজ ভাষায় চলার মত কথা বলতে পারি। চাইনিজ ভাষায় প্রায় ৮শ বর্ণমালা এবং কারেক্টার আছে ৮০ হাজার।এভাষা পুরোপুরি আয়ত্ব করা অনেক কঠিন। তারমধ্যে আছে আঞ্চলিক ভাষার ঝামেলা।তদুপরি ১৯৫২ সালের আগে এভাষা অনেক কঠিন ছিল। এখন অনেকটা সহজ।

ভাষা শেখা নিয়ে তিনি বলেন, আমার বাবা জমি বিক্রি করে ৬৫ হাজার টাকা দেন আমাকে একটি চাইনিজ ল্যাংগুয়েজ টিচিং সেন্টারে ভর্তির জন্য।তখন আমাদের আত্মীয়-স্বজনরা আমার বাবাকে বকেছে। আমি ৯০ দিনের কোর্স কমপ্লিট না হতেই, অর্থাৎ ৭১ দিনের মাথায় চাকরি পেয়ে যাই এবং প্রথম দুই মাসেই বাবার টাকা ফেরত দিই।

ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডের এই স্বাবলম্বী তরুণ জানান, শুধু ভাষা শেখা নয় চাইনিজ ল্যাংগুয়েজ টিচিং সেন্টার থেকে আমি শিখেছি বড় বড় মানুষদের সাথে কিভাবে কথা বলতে হয়।আমি এখন চাইনিজ দূতাবাসের বড় কর্মকর্তাদের সাথে স্মার্টলি কথা বলতে পারি। ভাষা শিখে অনেকে চায়নার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়েও চাকরি করছে বলেও জানান তিনি। দোভাষীর কাজ করে ভালো টাকা আয় করছে হাজারো তরুণ তরুণী।

চাইনিজ ভাষা শিখে একইরূপ বেতন ভাতার সুবিধাপ্রাপ্ত ভোলার লালমোহনের স্বাবলম্বী তরুণ মো. সাইমন শিকদার জানান, আমি মাত্র এসএসসি পাস করে চাইনিজ ভাষা শিক্ষা কোর্স করে মাসে ৪০ হাজার টাকা বেতন পাই।আগামী মাসে বেতন পাব ৪৫ হাজার টাকা। আমার জীবনটাই এখন বদলে গেছে। সাইমন আশুলিয়ার জিয়াংসু প্রভিনশিয়াল ট্রান্সপোর্টেশন ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ অব কোম্পানীতে দোভাষী হিসেবে কর্মরত। তিনি বলেন, আমার বাবা নেই। চাইনিজ ভাষা শেখার কারণে আমার পরিবারে আর্থিক স্বচ্ছলতা এসেছে।

চাইনিজ ল্যাংগুয়েজ বিশেষজ্ঞ লে. কর্নেল অব. শাহাদৎ হোসেন জানান, চাইনিজ ভাষা শিখে হাজার হাজার তরুণ তরুণী তাদের জীবন বদলে ফেলছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের বেকার জনগোষ্ঠির জন্য ভাষা শিক্ষা একটি সম্ভাবনাময়ী খাত, যে খাতে লক্ষ তরুণ-তরুণী খুঁজে পেতে পারেন পছন্দের কর্মসংস্থান।

Facebook Comments Box
এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৬ প্রথম চট্টগ্রাম। @ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park