1. admin@prothomctg.com : admin :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০৮ অপরাহ্ন

চট্টগ্রামে ২৯৭৬ কেজি পলিথিন জব্দ, জরিমানা

প্রথম চট্টগ্রাম ডেস্ক :
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জুলাই, ২০২৩
  • ১০৪ বার পঠিত

চট্টগ্রাম নগরীকে পলিথিনমুক্ত চট্টগ্রাম সিটি মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী ঘোষণা দিয়েছিলেন কয়েকবার। ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবানও জানিয়েছিলেন।

বলেছিলেন-এরপর থেকে সিটি কর্পোরেশন কঠোর ব্যবস্থা নেবে। কিন্তু তার কিছুই দেখেনি নগরবাসী। শেষ পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনকেই নামতে হলো মাঠে এই পলিথিনের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার ( ৬ জুলাই) নগরীর বেশ কয়েকটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে জেলা প্রশাসনের তিনটি ভ্রাম্যমাণ আদালতের টিম প্রায় তিন টন পলিথিন জব্দ করেছে।

পাশাপাশি একটি গোডাউন সীলগালা সহ ৪৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানের সময় একটি গোডাউনের মালিক পালিয়ে গেছেন বলে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত সুত্রে জানা গেছে।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই অভিযানের সময় জব্দকৃত সকল পলিথিন ধ্বংস করার জন্য পরিবেশ অধিদপ্তরে প্রেরণ করা হয়। পরিবেশ অধিদপ্তরের ৩ জন সহাকারি পরিচালক, পাট উন্নয়ন সহকারি ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সদস্যবৃন্দ অভিযানে সহায়তা করেন।

চট্টগ্রামে পলিথিন বিরোধী অভিযানের ব্যাপারে জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান বলেন- চট্টগ্রাম নগরীকে পলিথিনমুক্ত করার লক্ষ্যে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে এবং এ ব্যাপারে প্রশাসন আরও কঠোর হবে।

নগরীর জেল রোড, আছাদগঞ্জ, রিয়াজুদ্দিন বাজার, চাকতাই এবং বাকলিয়া এলাকায় জেলা প্রশাসনের ৩ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিষিদ্ধ পলিথিন বিরোধী মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

এসময় চান্দগাঁও সার্কেলের এসিল্যান্ড ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ রানা জেল রোডের অন্ততঃ ১০টি দোকানে অভিযান পরিচালনা করেন।

তবে দোকানগুলোতে কোন নিষিদ্ধ পলিথিন পাওয়া না গেলেও একটি গোডাউনে তালাবদ্ধ অবস্থায় বিপুল পরিমাণ পলিথিনের মজুদ দেখতে পান। ম্যাজিস্ট্রেট এর নির্দেশে ছোট ছোট ১১ টি কক্ষের তালা ভেঙে প্রায় ২টন পলিথিন জব্দ করা হয়।

এসময় গোডাউনের মালিক পালিয়ে যাওয়ায় গোডাউনের সবগুলো কক্ষে তালা লাগিয়ে সিলগালা করে দেয়া হয়। যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতিরেকে সিলগালা খোলা যাবে না।
তাই যিনিই অনুমতি নিতে যাবেন তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। একজন ব্যবসায়ীকে অল্প কিছু পলিথিন দোকানে রাখার অপরাধে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এদিকে নগরীর কোতোয়ালি থানার অধীন রিয়াজউদ্দিন বাজার এলাকায় বাকলিয়া সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস.এম.এন. জামিউল হিকমা এর তত্ত্বাবধানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে বেশ কিছু দোকান থেকে ৬০০ কেজি পলিথিন জব্দ করা হয় এবং মাহফুজ সালাম ও মো: আব্দুর রহমান নামে ২ জন ব্যক্তিকে তিন হাজার টাকা) করে মোট ছয় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হুছাইন মুহাম্মদের নেতৃত্বে নগরীর আছাদগঞ্জ, চাকতাই ও বাকলিয়া এলাকায় পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ও পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইনে নিষিদ্ধ পলিথিন বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ৭টি কারখানা ও ২০ টি মজুদকারি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করা হয়।

এদের মধ্যে-বিসমিল্লাহ পলি ইন্ডাষ্ট্রিজ, সামরিন এন্টারপ্রাইজ,শাহজালাল প্যাকেজিং এন্ড প্রিন্টিং, মিজান পলিথিন মার্ট, যমুনা পলি, প্রাইম পলি, চিটাগং এক্সেসরিজ অন্যতম।

উক্ত পরিদর্শনের সময় নিষিদ্ধ পলিথিন মজুদ রাখার দায়ে ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৩২ হাজার টাকা অর্থদন্ড এবং ৩৭৬ কেজি পলিথিন জব্দ করা হয়।

Facebook Comments Box
এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৬ প্রথম চট্টগ্রাম। @ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park